সেঞ্চুরি গোলের আগেই রোনালদোর ভিডিও ভাইরাল


ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে খেলতে না পারায় বেড়েছে রোনালদোর সেঞ্চুরি গোলের অপেক্ষা। এখন পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ফুটবলে তার গোলসংখ্যা ৯৯টি। আর মাত্র একটি গোলেই পূরণ হবে সেঞ্চুরি; যা হয়তো দেখা যেতে পারে সুইডেনের বিপক্ষে মঙ্গলবারের (৮ সেপ্টেম্বর ২০২০) ম্যাচে


পায়ের ইনফেকশনের কারণে উয়েফা নেশনস লিগে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে পর্তুগালের প্রথম ম্যাচটি খেলতে পারেননি দলের সবচেয়ে বড় তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। পায়ের অবস্থা ভালো না হওয়ায় ম্যাচের স্কোয়াডেও রোনালদোকে রাখেননি পর্তুগালের কোচ ফার্নান্দো সান্তোস।
তবু খবরের শিরোনাম ঠিকই হয়েছেন রোনালদো। তবে কোনো ইতিবাচক কারণে নয়, বরং খানিক বিব্রতকর পরিস্থিতিতেই পড়েছিলেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এ ফুটবলার। যে কারণে মৌখিক সতর্কতাও পেতে হয়েছে তাকে।
ঘটনা ম্যাচ চলাকালীন সময়ের। এস্তাদিও ডো ড্রাগনের গ্যালারিতে বসে নিজ দেশের ম্যাচটি দেখছিলেন রোনালদো। হয়তো বেখেয়ালি হয়েই খুলে রেখেছিলেন মুখের মাস্ক। যা কি না বর্তমানে ঘোরতর ভুলের পর্যায়েই পড়ে। ফলে সঙ্গে সঙ্গে এক নারী স্টাফ এসে সতর্ক করে যান রোনালদোকে এবং মাস্ক পরতে বলেন।
যেহেতু খেলোয়াড়টি রোনালদো, ফলে পুরোটা সময় তার ওপর ক্যামেরা তাক করে থাকাই স্বাভাবিক। যার ফলে রেকর্ড হয়ে গেছে রোনালদোর মাস্ক না পরে থাকার অংশটিও। যা এখন রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। রোনালদোর বিব্রতকর চাহনিটি একেক রকমের প্রতিক্রিয়ার জন্ম দিয়েছে একেক মানুষের মনে।
মাঠের বাইরের ঘটনায় খানিক বিব্রত হলেও ম্যাচ শেষে হাসিমুখেই বের হয়েছেন রোনালদো। হোয়াও ক্যানসেলো, ডিয়োগো জোতা, হোয়াও ফেলিক্স এবং আন্দ্রে সিলভার গোলে ক্রোয়েশিয়াকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে পর্তুগাল। যার ফলে শেষ ১০ ম্যাচের ৯টিতেই জিতল ফার্নান্দো সান্তোসের শিষ্যরা।
ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে খেলতে না পারায় বেড়েছে রোনালদোর সেঞ্চুরি গোলের অপেক্ষা। এখন পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ফুটবলে তার গোলসংখ্যা ৯৯টি। আর মাত্র একটি গোলেই পূরণ হবে সেঞ্চুরি; যা হয়তো দেখা যেতে পারে সুইডেনের বিপক্ষে মঙ্গলবারের ম্যাচে।

ক্রোয়েশিয়াকে উড়িয়ে দিল পর্তুগাল
ফুটবল বিশ্বকাপের বর্তমান রানারআপ ক্রোয়েশিয়াকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে পর্তুগাল। পুরো ম্যাচজুড়েই আধিপত্য ছিল স্বাগতিকদের। শেষদিকে যাও একটি গোল করেছিল ক্রোয়াটরা। কিন্তু এরপরেও আরও একটি গোল হজম করতে হয়েছে তাদের।
পর্তুগালের এস্তাদিও ডো ড্রাগনে শনিবার রাতে এবারের নেশনস লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেছিল পর্তুগাল। প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়াকে সে অর্থ কোনো সুযোগই দেয়নি তারা। ম্যাচের একদম শুরু থেকেই একের পর এক আক্রমণে ক্রোয়েশিয়ার রক্ষণভাগকে ব্যতিব্যস্ত করে রাখে পর্তুগাল।
তবু প্রথম গোল পেতে অপেক্ষা করতে হয় ম্যাচে ৪১ মিনিট পর্যন্ত। হোয়ান ক্যানসেলোর গোলে অন্তত লিডটা নিয়ে বিরতিতে যায় ফার্নান্দো সান্তোসের শিষ্যরা। প্রায় ২০ গজ দূর থেকে দূরপাল্লার শটে জাল কাঁপান ম্যানচেস্টার সিটির এ ডিফেন্ডার।
দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে গোল পেতে খুব একটা সময় লাগেনি। ম্যাচের ৫৮ মিনিটের সময় ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ডিয়েগো জোতা। ডিফেন্ডার গেররেয়োর বাড়ানো বল ধরে নিখুঁত ফিনিশিংয়ে স্কোরশিটে নাম তোলেন তিনি। এর ১৩ মিনিট পর আরও একবার উল্লাসে মাতে পর্তুগাল। এবার স্কোরার হোয়াও ফেলিক্স।
ম্যাচের নির্ধারিত ৯০ মিনিটে স্কোরলাইন থাকে ৩-০। অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে একটি গোল শোধ করেন ব্রুনো পেতকোভিচ। যা সহ্য হয়নি আন্দ্রে সিলভার। মিনিট তিনেক পর জাল কাঁপিয়ে ম্যাচের স্কোরলাইন করে দেন ৪-১।