রোনালদো স্পট-কিকে লিড এন দেন জুভেন্টাসকে

সোমবার রাতে প্রতিপক্ষের মাঠে ২-০ গোলে জিতেছে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা জুভেন্টাস। দুটি গোলই হয় ম্যাচের প্রথমার্ধে। ২৩তম মিনিটে রোনালদো স্পট-কিকে লিড এনে দেন জুভেন্টাসকে। চলতি সিরিএতে এটি তার ২২তম গোল

করোনা ভাইরাসের কারণে লম্বা সময় স্থগিত থাকা সিরিএ ফের মাঠে গড়িয়েছে গেল শনিবার। নতুন শুরুর পর বোলোনিয়ার বিপক্ষে ইতালির পেশাদার ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরে প্রথম ম্যাচটি খেলল মাউরিজিও সারির দল। বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণে আধিপত্য দেখায় টানা আটবারের লিগ চ্যাম্পিয়নরা। বিপরীতে, তাদের রক্ষণকে তেমন কোনো পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি বোলোনিয়া।
ম্যাচের সপ্তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত জুভরা। ডি-বক্সের ভেতর থেকে রোনালদোর নেওয়া শট প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক ঝাঁপিয়ে পড়ে রুখে দেন। ১৭তম মিনিটে এই পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের ফ্রি-কিক গোলপোস্টের অনেক উপর দিয়ে চলে যায়।
তৃতীয়বারে সফল হন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনালদো। ২৩তম মিনিটে রোনালদো স্পট-কিকে লিড এনে দেন জুভেন্টাসকে। চলতি সিরিএতে এটি তার ২২তম গোল। নেদারল্যান্ডসের ডিফেন্ডার মাতাইস ডি লিট ফাউলের শিকার হওয়ায় রেফারি বাজিয়েছিলেন পেনাল্টির বাঁশি।
৩৬তম মিনিটে অসাধারণ একটি গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন দিবালা। ফেদেরিকো বার্নারদেস্কি ব্যাক-হিলে বল বাড়ান এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে। ডি-বক্সের বাইরে থেকে বাঁ পায়ের জোরালো শটে বোলোনিয়ার জাল কাঁপান তিনি।
চার মিনিট পর আবার লক্ষ্যভেদ করার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিলেন দিবালা। রোনালদোর ক্রসে তার ডান পায়ের শট লক্ষ্যে থাকেনি।
দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে রদ্রিগো বেন্তানকুর রক্ষণচেরা পাস দিয়েছিলেন রোনালদোকে। তবে বোলোনিয়া গোলরক্ষককে একা পেয়েও বল জালে জড়াতে পারেননি তিনি। পরের মিনিটে ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড বার্নারদেস্কির বাঁ পায়ের শট পোস্টে লেগে ফিরে এলে ব্যবধান বাড়ানো হয়নি জুভেন্টাসের।
৭৩তম মিনিটে রোনালদোর ডান পায়ের দূরপাল্লার শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে অবশ্য বল জালে পাঠিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাকে বল বাড়ানো দগলাস কস্তা অফসাইডে থাকায় গোলটি বাতিল হয়।
জুভেন্টাস পুরো ১১ জন নিয়ে ম্যাচ শেষ করতে পারেনি। ম্যাচের যোগ করা সময়ে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন দলটির ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার দানিলো।
২৭ ম্যাচে ২১ জয় এবং তিনটি করে ড্র ও হারে জুভদের অর্জন ৬৬ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলে ৬২ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে লাৎসিও। সমান ম্যাচে তিনে থাকা ইন্টার মিলানের সংগ্রহ ৫৭ পয়েন্ট।