ঘুম বশে আনার কৌশল

একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের প্রতিদিন সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমের প্রয়োজন হয়, যা আমাদের মস্তিষ্ককে পর্যাপ্ত সময় দেয় স্মৃতিশক্তি ঝালাই করে নেবার। কিন্তু অনেকেই সাত-আট ঘণ্টা ঘুমাতে পারেন না।সারাদিন অফিস বা ক্লাস করে এসে ক্লান্ত হয়ে বিছানায় ঘুমুতে গেলেন, কিছুক্ষণ ছটফট করে বুঝতে পারলেন, ঘুম আর হবে না আজ! অথবা, ঘুমুতে গিয়েই মনে পড়ল—আজ তো আপনার পছন্দের টিভি সিরিজটা মুক্তি পেয়েছে! ব্যস, বসে পড়লেন মোবাইল নিয়ে। টিভি সিরিজ থেকে শুরু করে ইনসমনিয়া ছাড়াও সাথে থাকা স্মার্টফোনটির কারণেও অনেকের স্বাভাবিক ঘুম ব্যাহত হয়। দীর্ঘদিন এমন চলতে থাকলে ঘুম বেয়াড়া হয়ে পড়লে পরে শত চেষ্টায়ও ঘুম বশে আনা যায় না। পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে দেখা দেয় নানা বিপত্তি।
পর্যাপ্ত ঘুমের অভাব মানুষের একাগ্রতা কমিয়ে ফেলে, বিরক্তি এবং উদ্বেগ বাড়ায়। বিষণ্ণতা এবং ওজন বাড়ার অন্যতম কারণও ঘুমের অভাব। তাই অনায়াসে বলা যায়, ঘুম মানবদেহের শারীরিক এবং মানসিক গঠন ঠিক রাখতে সহায়তা করে। অথচ এই ঘুম নিয়েই আমাদের যত সমস্যা।
স্মার্টফোনের কারণে অনেকের ঘুমের ব্যাঘাত ঘটলেও এর মধ্যে প্রচুর অ্যাপ রয়েছে, যা আপনাকে সহজে ঘুমুতে সাহায্য করবে, দেখে নেয়া যাক ঘুম বশে আনার অ্যাপগুলো—
স্লিপ ওয়েল হিপনোসিস (Sleep Well Hypnosis)
এই অ্যাপটি বিভিন্ন তরঙ্গের শব্দ এবং শান্ত সংগীতের মাধ্যমে সম্মোহন কৌশল ব্যবহার করে। অ্যাপটি তৈরি করেছেন একজন সম্মোহন বিশেষজ্ঞ। যেখানে ঘুমের আগে দৈনিক ২৫ মিনিট এই অ্যাপের সঠিক ব্যবহার করলে এক থেকে দু সপ্তাহে ভালো ফলাফল পাওয়া উচিত বলে তিনি দাবি করেন।
শান্ত আবহসঙ্গীতের সাথে নম্র সম্মোহিত কণ্ঠের কথা ক্লান্ত দেহ ও মনের জন্য প্রচুর উপকারী। নিজের পছন্দমতো তরঙ্গের শব্দ বেছে নিতে পারবে অ্যাপটি থেকে।
অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস দুটোতেই এটি বিনামূল্যে পাওয়া যাবে।
রিকালার (Recolor)
এই অ্যাপটি অন্য অ্যাপগুলোর মতো শব্দভিত্তিক নয়। রিকালার হলো একটি অ্যাপের ভেতর বিশাল এক রঙ করার জায়গা!
ছোটদের রঙ করবার জন্য কালারিং বুক পাওয়া যায়, ঠিক সে ধারণা থেকেই অ্যাপটির জন্ম। সোজা কথায়, এটি বড়দের একটি কালারিং বুক।
১০০০-এর ওপর ছবি দেয়া আছে এর মধ্যে, যা নিজের পছন্দ মতো রঙ দিয়ে রঙিন করা যায়। যারা মোটেও আঁকতে পারেন না, তাদেরও এটি ব্যবহার করে ভালো লাগবে। বিভিন্ন ফুল থেকে শুরু করে সমুদ্রজীবন রঙ করতে করতে আরামবোধ অনুভব হওয়া বাধ্য।
প্রতিটি ছবি ছোট ছোট খণ্ডে ভাগ করাম যাতে রঙ করতে সুবিধা হয়। ঘুমানোর আগে সারাদিনের ধকল কমিয়ে দিতে পারে সহজেই এই অ্যাপটি।
অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস দুটোতেই বিনামূল্যে পাওয়া যাবে এটি।
পকেটকাস্টস (Pocketcasts)
এই অ্যাপটি সম্পর্কে জানার আগে জানতে হবে, পডকাস্ট কী?
পডকাস্ট হলো একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর আলোচনাভিত্তিক নিয়মিত পর্বের অনুষ্ঠান। অনেকটা রেডিও অনুষ্ঠানের মতো। পশ্চিমা বিশ্বে পডকাস্ট অনেক জনপ্রিয় একটা বিনোদনের মাধ্যম। বিখ্যাত সব মানুষ কমেডি থেকে শুরু করে অপরাধ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পডকাস্ট করে থাকেন।
অনেক বিখ্যাত পডকাস্ট সিরিজ পর্ব পর্ব করে মুক্তি পায়। সিরিজের বিষয়ের ওপর নির্ভর করে হয়তো প্রত্যেক পর্বে বিশেষ কোনো অতিথি থাকেন। যেমন জো রোগান পডকাস্টে কিছুদিন আগে রবার্ট ডাউনি জুনিয়র এসে দু ঘণ্টার একটি পর্ব করে গিয়েছেন।
পডকাস্টের বিষয়গুলো অনেক ধরনের হতে পারে। হালচালের বিজ্ঞান থেকে শুরু করে কমিকবুক সিনেমা এবং টেলিভিশন সিরিজ নিয়ে তত্ত্ব, রিভিউ থাকে এসব পডকাস্টে। দ্য রিওয়াচেবলের সাম্প্রতিক পর্বে বিখ্যাত পরিচালক কুইন্টিন ট্যারান্টিনো আরেক বিখ্যাত নির্মাতা ক্রিস্টোফার নোলান নির্মিত সিনেমা ডানকার্ক নিয়ে আলোচনা করেছেন।
এই পডকাস্ট ডাউনলোড করে অফলাইনে শোনার অ্যাপ হচ্ছে পকেটকাস্টস। ঘুমানোর আগে পছন্দের মানুষদের গল্প শুনতে শুনতে ঘুমিয়ে যাওয়া মন্দ কী!
অ্যাপটিতে টাইমারের ব্যবস্থাও রয়েছে, যাতে টাইমার বন্ধ হয়ে গেলে অ্যাপটিও বন্ধ হয়ে যাবে।
শুরু থেকে অ্যাপটি সাত ডলারের বিনিময়ে কিনতে হতো গুগল প্লে স্টোর থেকে। বর্তমানে বিনামূল্যে পাওয়া যাচ্ছে এটি।